১৪ মার্চ ই (রবিবার) দুপুরে বান্দরবান জেলা প্রশাসনের আয়োজনে পরিবেশ, বন ও জলবায়ু মন্ত্রণালয় এবং বাংলাদেশ রাবার বোর্ড প্রধান কার্যালয় এর সহযোগিতায় বান্দরবান জেলা প্রশাসকের সভাকক্ষে এই মতবিনিময় সভা অনুষ্ঠিত হয়।

জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি এর সভাপতিত্বে সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন বাংলাদেশ রাবার বোর্ডের চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত সচিব) সৈয়দা সারওয়ার জাহান।

অন্যান্যদের মধ্যে বাংলাদেশ রাবার বোর্ড এর উপ-পরিচালক সাব্বির রহমান সানি,বান্দরবান জেলা প্রশাসনের নেজারত ডেপুটি কালেক্টর (এনডিসি) মো. জাকির হোসেন,রাবার বোডের্র সদস্য ছলিমুল হক চৌধুরী,বাংলাদেশ রাবার গার্ডেন ওনার্স এসোসিয়েশনের সভাপতি মো.কামাল উদ্দিনসহ বান্দরবান জেলার বিভিন্ন রাবার বাগান চাষী ও ব্যবসায়ী ও সমিতির নেতৃবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন।

বক্তারা বলেন,নানাবিধ সমস্যার কারনে বান্দরবানে দিন দিন রাবার চাষী ও ব্যবসায়ীরা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে। বিভিন্ন ইট ভাটায় রাবার গাছ পোড়ানো,গাছ চুরি করে নিয়ে গিয়ে বাগান নষ্ট করে দেয়াসহ বিভিন্ন সমস্যার কারনে রাবার ব্যবসা ক্রমশ কমে আসছে। এসময় বক্তারা রাবারকে কৃষিপণ্য হিসেবে গণ্য করা, রাবারের ভ্যাট নির্ধারনে কম মূল্য ধার্য্য করা ও দীর্ঘমেয়াদী জমি লীজ দেয়ার জন্য প্রশাসনের সহযোগিতা কামনা করেন।

প্রধান অতিথি বাংলাদেশ রাবার বোর্ডের চেয়ারম্যান (অতিরিক্ত সচিব) সৈয়দা সারওয়ার জাহান  বলেন,বর্তমান সরকার রাবার শিল্পের উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে এবং আগামীতে ও দেশের রাবার শিল্পের উন্নয়নে আরে বেশ কিছু কাজ করা হবে এবং এর মাধ্যমে দেশের রাবার শিল্প বহিবিশ্বে একদিন সুনাম ছড়াবে।

সভায় সভাপতির বক্তব্য রাখতে গিয়ে বান্দরবানের জেলা প্রশাসক ইয়াছমিন পারভীন তিবরীজি বলেন,বান্দরবানের বিভিন্ন উপজেলায় রাবার চাষ শুরু হয়েছে বহু বছর আগে থেকে আর বান্দরবানের উৎপাদিত রাবার দেশের বিভিন্ন প্রান্তে পৌঁছে গিয়ে বিভিন্ন নিত্যনতুন জিনিস তৈরি করা হচ্ছে। এসময় জেলা প্রশাসক রাবার ব্যবসায়ীদের আরো দায়িত্বশীল হয়ে রাবার চাষ ও রাবার বিক্রির সাথে জড়িত হয়ে দেশের অর্থনীতির গতিকে আরো সমৃদ্ধ করার আহবান জানান এবং জেলা প্রশাসন থেকে সার্বিক সহযোগিতা প্রদান করার আশ্বাস দেন।

Leave a Reply