Hits: 3

মোঃশহীদুল ইসলাম রানা, বান্দরবান সংবাদ দাতা:
“যে নারী রাধে সে চুলও বাধে” আমাদের সমাজের আজকের নারীরা এগিয়ে গিয়েছে অনেক দুর।

এরই ধারাবাহিকতায় তৃনমুল পর্যায়ে দেশের অর্থনৈতিক ক্ষমতায়নে নারী উদ্যোক্তাদের বিকাশ সাধন প্রকল্পের আয়োজনে এবং বান্দরবান জেলা প্রশাসনের সহযোগিতায় জেলা প্রশাসকের কার্যালয়ের প্রাঙ্গণে জেলায় শুরু হয়েছে ৭ দিন ব্যাপি নারী উদ্যোক্তাদের আনন্দ মেলা ২০২১।

জেলা প্রশাসক ইয়াসমিন পারভীন তিবরিজী এবারের  নারী উদ্যোক্তাদের আনন্দ মেলা উদ্বোধন করেন। আয়োজিত এবারের নারী উদ্যোক্তা আনন্দ মেলায় স্থান পেয়েছে হাতে তৈরী বিভিন্ন পোশাক শীল্প, হ্যান্ডি ক্রাফট শীল্প, লেদার শীল্প সহ নানা ধরনের হস্তশিল্পের জিনিস পত্র।

মেলায় অংশগ্রহণ করতে আশা একজন নারী উদ্যোক্তা,জাতীয় মহীলা সংস্থার সদস্য এবং বাংলাদেশ ফ্যাসন ডিজাইনার এসোসিয়েশনের চেয়ারম্যান,মিসেস রাজিয়া সুলতানা তিনি জানান বান্দরবানে নারীদের উন্নয়নে অনেক কাজই আমার চোখে পড়েছে।তিনি জানান এবারি প্রথম জেলায় নারী উদ্যোক্তাদের আনন্দ মেলায় ঢাকা জেলা হতে মোট ৪০ টি এবং চট্টগ্রাম জেলা হতে মোট ১০ টি,সহ  আরো ১০ টি স্টল বান্দরবান জেলা হতে সর্বমোট ৬০ টি স্টল অংশগ্রহন করেছে।

সফল এই নারী উদ্যোক্তা বলেন দেশের জনসংখ্যার অর্ধেকই হলো নারী। অর্ধেক জনশক্তি নারীকে অর্থনৈতিক কর্মকাণ্ডে যুক্ত করে নারীর ক্ষমতায়নের প্রধানতম চালিকাশক্তি হিসেবে বিবেচনায় আনতে হবে। নারীর প্রতি সব রকমের বৈষম্যের অবসান করে নারী-পুরুষের মধ্যে সমতা এবং সমঝোতা তৈরি করে একটি সমশ্রমে উদ্বুদ্ধ রাষ্ট্র হিসেবে বাংলাদেশকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান এই নারী উদ্যোক্তা।

মেলার বিষয়ে তিনি বলেন, নারী উদ্যোক্তাদের অনুপ্রেরণা যোগাতে এবং উদ্যোক্তা ও ভোক্তার মধ্যে সেতুবন্ধন গড়ে তুলতে এ ধরনের মেলার আয়োজন করা খুবই গুরুত্বপূর্ণ। আপনারা উদ্যোক্তা ও দর্শনার্থীরা সহযোগিতা করবেন বলেই আমাদের আয়োজন সার্থক হবে। ভবিষ্যতে আমরা আরও বৃহৎপরিসরে এই ধরণের আয়োজন করবো।

তিনি আরো জানান বর্তমান নারীরা ব্যাবসায় প্রচুর এগিয়ে এসেছে, মেলায় অংশগ্রহন করা সব গুলো প্রতিষ্ঠানের স্টলের মালিক একজন নারী উদ্যোক্তা।

তিনি বলেন মেলায় অংশগ্রহণের দিক থেকে নারী উদ্যোক্তাদের প্রচুর সাড়া পেয়েছি,তবে সবাই অংশগ্রহণ করতে পারে নি পরবর্তীতে আরো বেশি পরিসরে নারী উদ্যোক্তাদের উৎসাহিত করতে মেলায় বেশি স্টলের ব্যাবস্থা থাকবে।

এবারের মেলায় দেশের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে নারী উদ্যোক্তারা অংশগ্রহণ করেন,রাজধানী ঢাকা থেকে মেলায় অংশগ্রহণ করতে আশা  স্বর্নলতা বুটিকস,এর স্বত্বাধিকারী সুলতানা শিফা একজন নারী উদ্যোক্তা এবারের নারী আনন্দ মেলায় তার প্রতিষ্ঠানের তৈরী পণ্য,হাতের তৈরী কাথা,শাড়ি,বিছানার চাদর সহ মহিলাদের সাজগোজের অনেক কিছুই ক্রেতাদের নজর কাড়বে। তিনি বলেন এবারি প্রথম বান্দরবানে মেলায় অংশগ্রহণ করেছি আশার চেয়ে সাড়াটাও ভালো পেয়েছি।

মেলায় অংশগ্রহণ করা প্রতিষ্ঠান লেদারি টেক্স, যার স্বত্বাধিকারী মিসেস জান্নাতুল মাওয়া,লেদার শীল্পের তৈরী সামগ্রীর সমারোহ আছে তার স্টলে।

আরেক জন নারী উদ্যোক্তা ইরা বুটিকস এর স্বত্বাধিকারী মিসেস ইরা তিনি বলেন পড়ালেখা শিখে চাকরির পেছনে না দৌড়ে বিসিক থেকে স্বল্প মেয়াদি প্রশিক্ষণ নিয়ে ব্যাক্তি উদ্যোগে গড়ে তুলেছি আমার নিজস্ব প্রতিষ্ঠান,বর্তমানে আমার প্রতিষ্ঠানেই অনেকেরই আত্মকর্মসংস্থানের ব্যাবস্থা হয়েছে।তিনি বলেন বর্তমান সরকার নারী উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করে যাচ্ছে,এ ধরনের মেলার আয়োজনের মাধ্যমে পরবর্তীতে আরো অনেক নারীরা আত্মনির্ভরশীল হয়ে নতুন উদ্যোক্তা গড়ে তুলতে সাহায্য করবে।

মেলায় অংশগ্রহণ কারী নারী উদ্যোক্তা শিবি বুটিক হাউস এর স্বত্বাধিকারী মিসেস সাকি বুল বুল শিমূল একজন সফল নারী উদ্যোক্তা,তিনি বলেন একজন নারী চাইলেই নিজের পরীবার সামলিয়ে নিজেকে একজন ব্যাবসায়ি করে গড়ে তুলতে পারে,বর্তমানে আমার প্রতিষ্ঠানে ১৫০ মত কর্মচারী নিজেদের আত্মকর্মসংস্থানের জন্য কাজ করছে।এ ধরনের মেলার আয়োজনের মাধ্যমে আমাদের কার্যক্রমকে সবার সামনে নিয়ে আশার সুযোগ হয়।

Leave a Reply