Hits: 3

প্রশান্ত দে, আলীকদম
আলীকদম উপজেলায় প্রথম ধাপে করোনা টিকা গ্রহণ করেছেন নানা শ্রেণি-পেশার মানুষ। তারা স্বেচ্ছায় অনলাইন নিবন্ধনের মাধ্যমে করোনা টিকা গ্রহণ করেছেন।

রবিবার (৭ ফেব্রুয়ারি) আলীকদম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে টিকাদান কর্মসূচির উদ্বোধন করেন উপজেলা স্বাস্থ ও পরিবার পরিকল্পনা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ডাঃ মাহাতাব উদ্দিন চৌধুরী। এসময় তিনি স্ব-উদ্যোগে করোনার ভাইরাস টিকা গ্রহণ করেন। এছাড়াও অফিসার ইনচার্জ আলীকদম থানা (ওসি) কাজী রাকিব উদ্দীন করোনার ভাইরাস টিকা গ্রহণ করে সাধারণ মানুষকে করোনা টিকা গ্রহণ করতে উৎসাহিত করেন।

আলীকদম উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্স সূত্র জানায় উপজেলায় প্রথম ধাপে ৪০ জনকে করোনা ভাইরাস টিকা প্রদান করা হয়েছে। এবং অনলাইনে নিবন্ধনকারীদের প্রতিদিন সকাল ৯টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত করোনা ভাইরাস টিকা প্রদান চলমান থাকবে।

করোনা ভাইরাস টিকা কতদিন চলমান থাকবে কারা কারা টিকা গ্রহণ করতে পারবে এবং কোন পার্শপ্রতিক্রিয়া আছে কিনা জানতে চাইলে আলীকদম উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা ডাঃ মাহাতাব উদ্দিন চৌধুরী বলেন।করোনার টিকাদান কত দিন চলবে, তা এখনো কেউ নিশ্চিত করতে পারেননি। টিকার সম্ভাব্য পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া মোকাবিলায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর প্রয়োজনীয় পদক্ষেপ নিয়েছে। তবে নিবন্ধন করলেও সবাই টিকা সবাই পাবেন না। স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, ১৮ বছরের কম বয়সী, গর্ভবতী নারী ও স্তন্যদানকারী মা টিকা নিতে পারবেন না। এখনই জ্বরে ভুগছেন তিনি টিকা নেওয়া থেকে বিরত থাকবেন। করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন কিন্তু সুস্থ হওয়ার পর চার সপ্তাহ পার হয়নি এমন ক্ষেত্রে টিকা নেওয়া যাবে না। ওষুধে অ্যালার্জি আছে এমন ক্ষেত্রে টিকা না নেওয়ার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি।